গ্রামীণফোন- বাংলাদেশে তৈরি ৩জি Walton Primo E8i ৩,৫০০ টাকায়! সাথে পাচ্ছেন 1GB ইন্টারনেট + 1GB ফেইসবুক ব্রাউজিং ফ্রি!

বাংলাদেশে তৈরি Walton Primo E8i ৩,৫০০ টাকায়! সাথে পাচ্ছেন 1GB ইন্টারনেট + 1GB ফেইসবুক ব্রাউজিং ফ্রি। এ ছাড়া, ৩১ টাকায় আরও পাচ্ছেন ১০০ মিনিট (GP-GP) ও 1GB ফেইসবুক ইন্টারনেট।

Walton Primo E8i
– Android 6.0
– 1.2 GHz Quad Core Processor
– RAM: 512 MB; ROM: 8 GB
– Screen 4.5 inch FWVGA
– Camera 2MP + 5 MP
– 1700mAh Li-ion Battery

গ্রামীণফোন-বাংলাদেশে-তৈরি-৩জি-Walton-Primo-E8i-৩,৫০০-টাকায়-সাথে-পাচ্ছেন-1GB-ইন্টারনেট+1GB-ফেইসবুক-ব্রাউজিং-ফ্রি

ডিভাইসের বিস্তারিত এবং বান্ডেল অফার:

আইটেম কোড প্রোডাক্টের নাম মূল্য
3005837 ওয়ালটন প্রিমো E8i ৩,৫০০
  • সকল জিপি গ্রাহকদের জন্য এই অফারটি প্রযোজ্য (Skitto) ব্যতীত।
  • এই অফার গ্রামীণফোন সেলস চ্যানেল ও ওয়ালটন আউটলেট এ পাওয়া যাবে।

ডাটা অ্যাক্টিভেশন অফার নিম্নরূপ:

ট্যাগিংয়ের জন্য:
  • বৈধ ট্যাগিং এ গ্রাহক পাচ্ছেন ফ্রি ১জিবি ইন্টারনেট, এবং ১জিবি ফেইসবুক ইন্টারনেট (মেয়াদ ৭ দিন)।
 
বান্ডেল অফার:
  • গ্রাহকগণ ১০০(জিপি জিপি)মিনিট ক্রয় করতে পারবেন মাত্র ৩১ টাকায় (সকল চার্জ অন্তর্ভুক্ত) এবং সাথে পাচ্ছেন ফ্রি ১জিবি ফেইসবুক ইন্টারনেট (মেয়াদ ২৮ দিন)।
  • গ্রাহকগণ এই বান্ডেল অফার কিনতে পারবেন ৩ মাসে ৩ বার।
 

ইন্টারনেট অফার চালু করার নিয়মাবলি:

ট্যাগিংয়ের জন্য: (তাৎক্ষণিক ট্যাগিং ব্যর্থ হলে)
  • গ্রাহককে GPEXP লিখে এসএমএস পাঠাতে হবে ৫০৫০ নম্বরে (কোনো চার্জ নেই)।
 
বান্ডেল অফার চালু:
  • গ্রাহক BUY31 লিখে এসএমএস পাঠাতে হবে ৫০৫০ নম্বরে (কোনো চার্জ নেই)।
 
চেক পয়েন্ট:
গ্রাহকগণ এই অফারটি কত বার ব্যবহার করেছেন, তা জানার জন্য Check BUY31 লিখে পাঠাতে হবে ৫০৫০ নম্বরে (কোনো চার্জ নেই)।
 
শর্তাবলী:
  • কি-ওয়ার্ডগুলো কেইস সেনসেটিভ নয়।
  • নতুন-পুরানো সকল প্রিপেইড ও পোস্টপেইড গ্রাহকের জন্য এই অফারটি প্রযোজ্য।
  • স্কিটো গ্রাহকদের জন্য এই অফারটি প্রযোজ্য নয়।
  • ট্যাগিং অপশনটি ২ মাসের জন্য প্রযোজ্য। তবে কোনো গ্রাহক ৫৯তম দিনে ট্যাগড হলে তিনি পরবর্তী ৩ মাসে ৩ বার অফারটি নিতে পারবেন।
  • গ্রাহক অপশনটি গ্রহণ করা মাত্র ভ্যালিড ট্যাগিং-এর একটি কনফার্মেশন এসএমএস পাবেন।
  • ভ্যালিড ট্যাগিংয়ের জন্য গ্রাহককে ২৪ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে।
  • ট্যাগিং ব্যর্থ হলে, গ্রাহককে স্মার্টফোন বন্ধ করে পুনরায় চালু করতে হবে এবং আবার ট্যাগিং রিকোয়েস্ট পাঠাতে হবে, অথবা ১২১ নম্বরে কল করে গ্রামীণফোনের কাস্টমার সার্ভিসে যোগাযোগ করতে হবে।
  • ভ্যালিড ট্যাগিং শেষে পরবর্তীতে পাঠানো নির্দেশনাবলি গ্রাহকদেরকে অনুসরণ করতে হবে।
  • বোনাস ব্যাল্যান্স চেক: প্রিপেইড এবং পোস্টপেইড গ্রাহকগণ তাদের বোনাস এবং ক্রয়কৃত ইন্টারনেট ব্যালেন্স *১২১*১*২# নম্বরে ডায়াল করে জেনে নিতে পারবেন।
  • ফ্রি অফারটি চালু হতে সর্বোচ্চ ২৪ ঘণ্টা সময় প্রয়োজন।
  • ইন্টারনেট ভলিউম শেষ হয়ে গেলে, মেয়াদ থাকাকালীন ১.২২ টাকা/এমবি (ভ্যাট + এসসি+ এসডি-সহ) হারে সর্বোচ্চ ২৪৪ টাকা পর্যন্ত চার্জ প্রযোজ্য হবে।
  • মেয়াদ থাকা অবস্থায় একই ডাটা প্যাক পুনরায় ক্রয় করলে নতুন ডাটা ব্যালেন্সের সাথে আগের ডাটা যুক্ত হবে।
  • ইন্টারনেট অফারটি বন্ধ করতে #121*3041# নম্বরে ডায়াল করতে হবে।
  • ভ্যালিড ট্যাগিংয়ের জন্য সকল নতুন এবং অব্যবহৃত সিম কার্ডের ক্ষেত্রে, প্রথমে নম্বরটি চালু করে নতুন ক্রয় করা হ্যান্ডসেটে সিম প্রবেশ করাতে হবে।
  • একই গ্রাহক একাধিকবার ট্যাগিং করলে প্রথম ভ্যালিড ট্যাগিং বিবেচনায় এনে ক্যাম্পেইনের সুবিধাসমূহ প্রযোজ্য করা হবে এবং ভ্যালিড ট্যাগিং-এর পর বান্ডেল বহাল থাকবে।
  • অটো রিনিউয়াল ফিচার থাকছে না। তাই কোনো গ্রাহক যদি ২৮ দিনের মধ্যে অফারটি রিনিউ না করেন, তাহলে তা স্বয়ংক্রিয়ভাবে ডিঅ্যাক্টিভেটেড হয়ে যাবে।
  • উপরে উল্লেখিত প্ল্যানটি সীমিত সময়ের প্রোমোশনাল অফার এবং পরবর্তী ঘোষণা দেয়ার আগ পর্যন্ত প্রযোজ্য থাকবে।
  • শুধুমাত্র বৈধ এবং গ্রহণযোগ্য IMEI-এর জন্য এই বান্ডেল অফারটি প্রযোজ্য হবে।
  • টাচ পয়েন্ট থেকে ডিভাইস সেলসের ৩ দিন পূর্বে থেকে ডিভাইস ভেন্ডরের শেয়ার করা IMEI লিস্টের উপর বান্ডেল অফারের প্রযোজ্যতা নির্ভর করে।
  • গ্রামীণফোনের সাথে IMEI শেয়ার না করা ডিভাইসের ক্ষেত্রে অফার সংক্রান্ত সমস্যার জন্য গ্রামীণফোন দায়ী থাকবে না।
  • অফারটি শুধুমাত্র ডিভাইস ভেন্ডর বা অথরাইজড ডিস্ট্রিবিউটরদের ভেরিফাইড হ্যান্ডসেটের জন্য প্রযোজ্য। সেটটি আসল কিনা – এ সংক্রান্ত যেকোনো বিতর্কের দায় ডিভাইস ভেন্ডর বা অথরাইজড ডিস্ট্রিবিউটরের।
  • ক্রেতাদের কাছে বিক্রিত হ্যান্ডসেট বৈধভাবে আমদানি করা হয়েছে কি না এবং তা বান্ডেল অফারের জন্য প্রযোজ্য কি না, সেটা নিশ্চিত করবেন ডিভাইস ভেন্ডরের রিটেইলারগণ।
  • ক্যাম্পেইন শেষে ট্যাগিং সংক্রান্ত কোনো অভিযোগ গ্রহণযোগ্য হবে না।

Written by 

আগ্রহ ,আকর্ষণ এবং ভালোবাসার কারণে ১৫ বছর হতে চললো আইটি সেক্টর নিয়ে তথ্য সংগ্রহ এবং এগুলো নিয়ে কাজ করার। ২০১১ সালের প্রথম দিকে ফেসবুক পেজ এবং পরবর্তীতে ওয়েবসাইট চালু করি। টেকখবরে আপনারা অনেক তথ্যই সহজে পাবেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *