বাংলালিংক ৭জিবি ৯৮টাকা ইন্টারনেট অফার

বাংলালিংক ৭জিবি ৯৮টাকা ইন্টারনেট অফার

বাংলালিংক ৭জিবি ৯৮টাকা ইন্টারনেট অফার

অফার পাবেন কিনা জানতে টাইপ 98 সেন্ড করুন 2500 নাম্বারে

৭জিবি ( প্রতিদিন ১ জিবি) ৭দিন রিচার্জ ৯৮টাকা
১৫জিবি  ( প্রতিদিন ১ জিবি) ১৫দিন  রিচার্জ ১৯৮টাকা
৩০জিবি ( প্রতিদিন ১ জিবি) ৩০দিন রিচার্জ ২৯৮টাকা

বাংলালিংক-৭জিবি-৯৮টাকা-ইন্টারনেট-অফার

বাংলালিংক ডাবল ইন্টারনেট বোনাস অফার! ১জিবি ৫৯টাকা, ৩জিবি ১০৯টাকা,৫জিবি ১৩৯টাকা

বাংলালিংক ডাবল ইন্টারনেট বোনাস অফার! ১জিবি ৫৯টাকা, ৩জিবি ১০৯টাকা,৫জিবি ১৩৯টাকা

বাংলালিংক ডাবল ইন্টারনেট বোনাস অফার!
ডাটা প্যাক কিনলেই ডাটা প্যাক ফ্রি!
বাংলালিংক-এ এখন ১ এর দামে ২! যেকোনো রেগুলার ইন্টারনেট প্যাক কিনলেই এখন পাবেন দ্বিগুণ বোনাস! রেগুলার ডাটা প্যাক কেনার পর যেকোনো পরিমাণ রিচার্জ করুন, আর পেয়ে যান বোনাস ভলিউম! এখন ব্রাউজিং, সার্ফিং চলবে ইচ্ছেমতো, যত খুশি!
  • ৩০০এমবি ৭দিন ২৬টাকা +১০টাকা
    প্রথমে, রিচার্জ ২৬টাকা
    এরপর, রিচার্জ ১০টাকা বা তার বেশি
  • ৫০০এমবি ৭দিন ৩৬টাকা +১০টাকা
    প্রথমে, রিচার্জ ৩৬টাকা
    এরপর, রিচার্জ ১০টাকা বা তার বেশি
  • ১জিবি ৭দিন ৪৯টাকা +১০টাকা
    প্রথমে, রিচার্জ ৪৯টাকা অথবা ডায়াল *5000*588#
    এরপর, রিচার্জ ১০টাকা বা তার বেশি
  • ৩জিবি ৭দিন ৯৯টাকা +১০টাকা
    প্রথমে, রিচার্জ ৯৯টাকা অথবা ডায়াল *5000*799#
    এরপর, রিচার্জ ১০টাকা বা তার বেশি
  • ৫জিবি ৭দিন ১২৯টাকা +১০টাকা
    প্রথমে, রিচার্জ ১২৯টাকা অথবা ডায়াল *5000*577#
    এরপর, রিচার্জ ১০টাকা বা তার বেশি
  • ৩জিবি ৩০দিন ২০৯টাকা +১০টাকা
    প্রথমে, রিচার্জ ২০৯টাকা অথবা ডায়াল *5000*581#
    এরপর, রিচার্জ ১০টাকা বা তার বেশি
  • ৬জিবি ৩০দিন ৩৯৯টাকা +১০টাকা
    প্রথমে, রিচার্জ ৩৯৯টাকা অথবা ডায়াল *5000*599#
    এরপর, রিচার্জ ১০টাকা বা তার বেশি

* ইন্টারনেট ব্যালেন্স এবং বোনাস জানতে *5000*500#
* ডায়াল *5000*566# ,রিপ্লে ১ - অটো রিনিউ চালু রাখতে অথবা  রিপ্লে ২ - অটো রিনিউ বন্ধ করতে
* ইন্টারনেট প্যাক বন্ধ করতে ডায়াল *5000*536#


অফারের বিস্তারিতঃ
  • ইন্টারনেট মেন্যু *5000# অথবা *5000*xxx# (সরাসরি ডায়াল স্ট্রিং) অথবা রিচার্জের মাধ্যমে ডাটা প্যাক কেনার পর গ্রাহকরা অফারটি সক্রিয় করতে পারবে
  • নিচের রিচার্জগুলো সহ অতিরিক্ত ১০ টাকা বা তার বেশি রিচার্জে অফার বোনাসটি পাওয়া যাবেঃ
                * মূল অ্যাকাউন্ট রিচার্জ
                * নির্দিষ্ট পরিমাণ রিচার্জের মাধ্যমে অফার অ্যাক্টিভেশন (ডাটা প্যাক, মিক্সড বান্ডেল, ভয়েস বান্ডেল, রেট কাটার ইত্যাদি)
                * স্ক্র্যাচ কার্ড রিচার্জ
  • বোনাস পাওয়ার জন্য অতিরিক্ত রিচার্জটি প্যাকটি অ্যাক্টিভেট করার দিনেই হতে হবে
  • বোনাস ডাটার মেয়াদ ডাটা প্যাকের মেয়াদের সমপরিমাণ
  • গ্রাহকরা উল্লেখিত মূল ডাটা প্যাক কিনলে, একবারের জন্যই এই বোনাসটি পাবেন
  • বোনাস চেক করতে ডায়াল *5000*500#
  • বিভিন্ন প্যাক কেনার ক্ষেত্রে দ্বিতীয়বার রিচার্জ করা হলে এই বোনাস সুবিধাটি গ্রাহকরা গ্রহণ করতে পারবেন
  • বোনাসের ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ মেয়াদটি প্রযোজ্য হবে
বাংলালিংক-ডাবল-ইন্টারনেট-বোনাস-অফার-১জিবি-৫৯টাকা-৩জিবি-১০৯টাকা-৫জিবি-১৩৯টাকা

টেলিটক ৩০জিবি ৪৪৯টাকা ইন্টারনেট অফার

টেলিটক ৩০জিবি ৪৪৯টাকা ইন্টারনেট অফার

টেলিটক ৩০জিবি ৪৪৯টাকা ইন্টারনেট অফার

৩০ জিবি মেয়াদ ৩০ দিন ৪৪৯টাকা
*দিনে ১জিবি ব্যবহার করা যাবে ,৩০ দিনে ৩০জিবি

কিনতে ডায়াল করুন *111*449#  অথবা রিচার্জ ৪৪৯টাকা

ডাটা চেক করতে  ডায়াল *152# অথবা টাইপ U সেন্ড করুন 111

টেলিটক-৩০জিবি-৪৪৯টাকা-ইন্টারনেট-অফার
গ্রামীণফোন ১জিবি ২১ টাকা ইন্টারনেট অফার

গ্রামীণফোন ১জিবি ২১ টাকা ইন্টারনেট অফার

গ্রামীণফোন ১জিবি ২১ টাকা ইন্টারনেট অফার
অফারটি পাবেন কিনা জানতে ভিজিট করুন
https://www.grameenphone.com/offersforyou
*এক এক জনের জন্য এক এক রকম অফার

গ্রামীণফোন ১জিবি ২১ টাকা ইন্টারনেট অফার
মেয়াদ ১৫ দিন
অ্যাক্টিভেট করতে ডায়াল করুন *১২১*৩৫৪৪#
ইন্টারনেট ব্যালেন্স চেক করতে *১২১*১*৪# এ ডায়াল করুন
গ্রামীণফোন-১জিবি-২১টাকা-ইন্টারনেট-অফার-জিপি-ডাটা-অফার.jpg




বিকাশ ৫০% ক্যাশব্যাক মোবাইল রিচার্জে , প্রথম ৩ বার রিচার্জে  ক্যাশব্যাক পাবেন

বিকাশ ৫০% ক্যাশব্যাক মোবাইল রিচার্জে , প্রথম ৩ বার রিচার্জে ক্যাশব্যাক পাবেন

বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে নিজের নাম্বারে প্রথমবার মোবাইল রিচার্জে বিকাশ দিচ্ছে ৫০% ক্যাশব্যাক
গ্রাহকরা ক্যাম্পেইনের সময়কালে নিজের অ্যাকাউন্টে প্রথম ৩ বার রিচার্জ ট্রানজ্যাকশনে এ ক্যাশব্যাক পাবেন। ১লা মার্চ, ২০১৮ থেকে ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ এর মধ্যে মোবাইল রিচার্জ করেননি এমন গ্রাহকগণ এই ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণের জন্য বিবেচিত হবেন।
বিকাশ-৫০-ক্যাশব্যাক-মোবাইল-রিচার্জে-প্রথম-৩-বার-রিচার্জে-ক্যাশব্যাক-পাবেন


৬০টাকা রিচার্জ করলে ৩০টাকা বিকাশ একাউন্টে ক্যাশব্যাক
নিজের নাম্বার বলতে যে নাম্বারে বিকাশ আছে ,সেই বিকাশ থেকে সেই নাম্বারে রিচার্জ করতে হবে
প্রথম ৩ বার রিচার্জ এ ক্যাশব্যাক পাবেন। মোট ৩০*৩= ৯০ টাকা

ক্যাম্পেইনের সময়কাল
২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ থেকে পরবর্তী নোটিশ না দেয়া পর্যন্ত

অফার
বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে নিজের নাম্বারে প্রথম ৩ বার মোবাইল রিচার্জ ট্রানজ্যাকশনে ৫০% ক্যাশব্যাক

ক্যাশব্যাকের জন্য রিচার্জের পরিমাণ
নিজের নাম্বারে যেকোনো অ্যামাউন্টের মোবাইল রিচার্জ
( ৬০টাকা রিচার্জ করলে ৩০টাকা বিকাশ একাউন্টে ক্যাশব্যাক )

ক্যাশব্যাকের লিমিট
প্রতি ট্রানজ্যাকশনে সর্বোচ্চ ৩০ টাকা

ক্যাশব্যাক বিতরণ
নিজের নাম্বারে রিচার্জ ট্রানজ্যাকশনের ৪৮ ঘণ্টার ভেতর

শর্তাবলীঃ

  • ১লা মার্চ, ২০১৮ থেকে ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০১৮ এর মধ্যে মোবাইল রিচার্জ করেননি এমন গ্রাহকগণ এই ক্যাম্পেইনে অংশগ্রহণের জন্য বিবেচিত হবেন।
  • ২৫শে সেপ্টেম্বর ২০১৮ থেকে নতুন রেজিস্টারকৃত গ্রাহকগণও ক্যাম্পেইন শেষ না হওয়া পর্যন্ত এই ক্যাশব্যাক অফারের জন্য বিবেচিত হবেন।
  • ক্যাম্পেইনের অফার ও সময়কাল অনুযায়ী সক্রিয় বিকাশ অ্যাকাউন্ট থেকে নিজের নাম্বারে রিচার্জ করা গ্রাহকদের জন্য এই ক্যাশব্যাক প্রযোজ্য।
  • নিজের নাম্বারে মোবাইল রিচার্জ বলতে বোঝানো হয়েছে ইনিশিয়েটর-এর বিকাশ একাউন্ট ও সফল মোবাইল রিচার্জ গ্রহণকারী নাম্বার এক হতে হবে।
  • ক্যাশব্যাকযোগ্য গ্রাহকগণ ৪৮ ঘন্টার মধ্যে একটি নোটিফিকেশনসহ ক্যাশব্যাক পাবেন।
  • যদি কোনো কারণে ক্যাশব্যাক বিতরণ ব্যর্থ হয়, সেক্ষেত্রে ক্যাম্পেইন শেষ হওয়ার ৭ দিনের মধ্যে একবার বিকাশ পুনরায় ক্যাশব্যাক বিতরণের চেষ্টা করবে। এ চেষ্টা ব্যর্থ হলে গ্রাহক আর ক্যাম্পেইনের ক্যাশব্যাক অফারের জন্য বিবেচিত থাকবেন না।
  • বিকাশ কোন পূর্ব নোটিশ ছাড়াই ক্যাম্পেইনের নিয়ম ও শর্তাদি পরিবর্তন / সংশোধন বা সম্পূর্ণ ক্যাম্পেইন বাতিল করার অধিকার সংরক্ষণ করে।
  • কোন নির্দিষ্ট ট্রানজ্যাকশন এবং/অথবা গ্রাহকের ট্রানজ্যাকশন কার্যক্রম যদি এরূপ কোন যুক্তিসংগত সংশয় তৈরি করে যে, গ্রাহক কর্তৃক ক্যাশব্যাক ক্যাম্পেইনের সুবিধার অপব্যবহার হয়েছে, সেক্ষেত্রে বিকাশ গ্রাহকের পে আউট বাতিলের অধিকার সংরক্ষণ করে।
  • গ্রাহকগণ বিকাশের পক্ষ থেকে সফল/অসফল ক্যাশব্যাক বিতরণ এবং ক্যাশব্যাকের লিমিট অতিক্রমের এসএমএস নোটিফিকেশন পাবেন।

এয়ারটেল এমএনপি অফার ১৪টাকায় ২৫ মিনিট এবং ২০০ এমবি ইন্টারনেট

এয়ারটেল এমএনপি অফার ১৪টাকায় ২৫ মিনিট এবং ২০০ এমবি ইন্টারনেট

এয়ারটেল এমএনপি অফার
(এমএনপি সম্পর্কে জানুন বিস্তারিত)

১৪টাকায় ২৫ মিনিট এবং ২০০ এমবি ইন্টারনেট
মেয়াদ ২ দিন
আরো বিস্তারিত 01644112233

এয়ারটেলে মাইগ্রেট করতে যা  করতে হবে

জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) তথ্যাবলি নিয়ে  রবি/এয়ারটেল কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে গিয়ে নতুন একটি সিম (নম্বর আগেরটাই) নিতে হবে। এই সিম পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে চালু হবে।

*একজন গ্রাহক ১৫৭টাকা  খরচ করে অপারেটর বদল করতে পারবেন। তবে আগের অপারেটরে ফিরতে হলে তাঁকে ৯০ দিন অপেক্ষা করতে হবে। ৯০ দিন পর ওই গ্রাহক আবারও অপারেটর বদলের সুযোগ পাবেন।

৭২ ঘণ্টার মধ্যে বদলাতে চাইলে ব্যয় হবে ১৫৮ টাকা
২৪ ঘণ্টার মধ্যে বদলাতে চাইলে ব্যয় হবে ২৫৮ টাকা

এয়ারটেল-এমএনপি-অফার-১৪টাকায়-২৫মিনিট-২০০এমবি-ইন্টারনেট-বাংলাদেশ

জিপি এমএনপি অফার

জিপি এমএনপি অফার

গ্রামীণফোন এমএনপি অফার
(এমএনপি সম্পর্কে জানুন বিস্তারিত)
MNP (মোবাইল নম্বর পোর্টেবিলিটি) সার্ভিসের মাধ্যমে গ্রাহক বর্তমান মোবাইল অপারেটর থেকে অন্য মোবাইল অপারেটরে MSISDN-(মোবাইল স্টেশন ইন্টারন্যাশনাল সাবস্ক্রাইবার ডিরেক্টরি নম্বর) অর্থাৎ মোবাইল নম্বর একই রেখে শিফট হতে পারবেন।

গ্রামীণফোনে মাইগ্রেট করতে যা  করতে হবে
জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) তথ্যাবলি নিয়ে গ্রামীণফোনে কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে গিয়ে নতুন একটি সিম (নম্বর আগেরটাই) নিতে হবে। এই সিম পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে চালু হবে।

*একজন গ্রাহক ১৫৭টাকা  খরচ করে অপারেটর বদল করতে পারবেন। তবে আগের অপারেটরে ফিরতে হলে তাঁকে ৯০ দিন অপেক্ষা করতে হবে। ৯০ দিন পর ওই গ্রাহক আবারও অপারেটর বদলের সুযোগ পাবেন।

৭২ ঘণ্টার মধ্যে বদলাতে চাইলে ব্যয় হবে ১৫৮ টাকা
২৪ ঘণ্টার মধ্যে বদলাতে চাইলে ব্যয় হবে ২৫৮ টাকা


জিপি নেটওয়ার্কে MNP করতে গ্রাহককে যেকোনো জিপিসি/জিপি এক্সপ্রেস/জিপি সিম রিপ্লেসমেন্ট পয়েন্টে যেতে হবে। জিপি রিটেইল পয়েন্টে MSISDN-(মোবাইল নম্বর), NID নম্বর, জন্মতারিখ, নাম ও ঠিকানা শেয়ার করার পর সাবস্ক্রিপশন শর্তাবলী গ্রহণ করে বায়োমেট্রিক ভ্যারিফিকেশন অর্থাৎ ফিঙ্গারপ্রিন্ট প্রসেস সম্পন্ন হলে গ্রাহক তার ব্যবহারকৃত বর্তমান অপারেটরের সিম-এ MNP সার্ভিস কনফার্মেশনের SMS পাবেন। এই ধাপগুলো সম্পন্ন হলে গ্রাহককে রিটেইলারের কাছ থেকে নতুন জিপি সিম সংগ্রহ করতে হবে। এরপর জিপি থেকে বর্তমান অপারেটর সিম-এ MNP কনফার্মেশনের SMS পেলে সবশেষে বর্তমান অপারেটর সিম বন্ধ হয়ে যাবে এবং নতুন জিপি সিমটি চালু হবে।

পোর্টিং-এর পরে ডিফল্ট প্যাকেজ:
*প্রিপেইড সংযোগ: Nishchinto(নিশ্চিন্ত)
*পোস্টপেইড সংযোগ: MyPlan-(মাইপ্ল্যান)

কিন্তু সফল পোর্টিং হওয়ার পর প্রয়োজনে গ্রাহক তৎক্ষণাৎ জিপি'র প্রযোজ্য যেকোনো প্যাকেজে মাইগ্রেট হতে পারবেন।

গ্রামীণফোন-জিপি-এমএনপি-অফার

বাতিল বা অগ্রহণযোগ্য হবার সম্ভাব্য কারন:
*নতুন সংযোগ চালু হওয়ার ৯০ দিনের মধ্যে পোর্টিং রিকোয়েস্ট করলে
*বর্তমান মোবাইল ফোন অপারেটরে বকেয়া বিল থাকলে
*মোবাইল নম্বরের মালিকানা পরিবর্তনের অনুরোধ প্রক্রিয়া চলতে থাকলে
*নম্বরটি বর্তমানে কোনো আইনগত কারনে বিচারাধীন থাকলে
*আদালতের আইন দ্বারা মোবাইল নম্বরটির পোর্টিং নিষিদ্ধ থাকলে এবং
*চুক্তিমূলক কোনো বাধ্যবাধকতা থাকলে

সরকারী নির্দেশাবলি অনুযায়ী, প্রিপেইড নম্বর পোর্টিং-এর সময় উক্ত নম্বরে ব্যালান্স , টক টাইম, ইন্টারনেট আর প্রযোজ্য হবে না।
রবি এমএনপি অফার - রবিতে নো প্রবলেম!

রবি এমএনপি অফার - রবিতে নো প্রবলেম!

রবি এমএনপি অফার - রবিতে নো প্রবলেম!
(এমএনপি সম্পর্কে জানুন বিস্তারিত)

কেন রবি ৪.৫ জি ?
১ নম্বর শক্তিশালী ৪.৫ জি নেটওয়ার্ক
সেরা ভিডিও নেটওয়ার্ক
নিরবিচ্ছিন্ন ইনডোর নেটওয়ার্ক
কম কল ড্রপ
সেরা কাস্টমার সার্ভিস
প্রাইস ট্রান্সপারেন্সি
সাশ্রয়ী রোমিং
ক্লিয়ার ভয়েস

আরো জানতে ০১৮৮৬১১২২৩৩

রবিতে মাইগ্রেট করতে যা  করতে হবে

জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) তথ্যাবলি নিয়ে  রবি কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে গিয়ে নতুন একটি সিম (নম্বর আগেরটাই) নিতে হবে। এই সিম পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে চালু হবে।

*একজন গ্রাহক ১৫৭টাকা  খরচ করে অপারেটর বদল করতে পারবেন। তবে আগের অপারেটরে ফিরতে হলে তাঁকে ৯০ দিন অপেক্ষা করতে হবে। ৯০ দিন পর ওই গ্রাহক আবারও অপারেটর বদলের সুযোগ পাবেন।

৭২ ঘণ্টার মধ্যে বদলাতে চাইলে ব্যয় হবে ১৫৮ টাকা
২৪ ঘণ্টার মধ্যে বদলাতে চাইলে ব্যয় হবে ২৫৮ টাকা
রবি-এমএনপি-অফার-রবিতে-নো-প্রবলেম

বাংলালিংক এমএনপি অফার ১জিবি ফ্রি ইন্টারনেট,যেকোনো নাম্বারে ৫৪ পয়সা/মিনিট, ১জিবি ৩৩ টাকা প্যাক

বাংলালিংক এমএনপি অফার ১জিবি ফ্রি ইন্টারনেট,যেকোনো নাম্বারে ৫৪ পয়সা/মিনিট, ১জিবি ৩৩ টাকা প্যাক

বাংলালিংক এমএনপি অফার
(এমএনপি সম্পর্কে জানুন বিস্তারিত)
সবচেয়ে বেশি দেয়ার নেটওয়ার্কে এবার আপনিও চলে আসুন!
মোবাইল নাম্বার পোর্টাবিলিটির (এমএনপি) মাধ্যমে এখন আপনার আগের নাম্বার একই রেখে বাংলালিংক-এর নেটওয়ার্কে চলে আসতে পারবেন। এর মাধ্যমে আপনি আপনার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারটি না বদলেই অন্য অপারেটরে চলে আসতে পারেন।

এর জন্য আপনাকে খুবই সহজ তিনটি ধাপ অনুসরণ করতে হবে।:-
*আপনার মোবাইল নাম্বারের সাথে NID কপি নিয়ে আপনার নিকটস্থ বাংলালিংক সেলস্‌ অ্যান্ড সার্ভিস সেন্টারে চলে আসুন
*ভেরিফিকেশনের জন্য আপনার আঙুলের ছাপ বায়োমেট্রিক ডিভাইসে প্রদান করুন এবং সার্ভিস প্রোভাইডার/রিটেইলারকে ই-রেজিস্ট্রেশন ফর্ম পূরণ করতে সাহায্য করুন
* নতুন বাংলালিংক সিমটি সংগ্রহ করুন


*একজন গ্রাহক ১৫৮টাকা  খরচ করে অপারেটর বদল করতে পারবেন। তবে আগের অপারেটরে ফিরতে হলে তাঁকে ৯০ দিন অপেক্ষা করতে হবে। ৯০ দিন পর ওই গ্রাহক আবারও অপারেটর বদলের সুযোগ পাবেন।

৭২ ঘণ্টার মধ্যে বদলাতে চাইলে ব্যয় হবে ১৫৮ টাকা
২৪ ঘণ্টার মধ্যে বদলাতে চাইলে ব্যয় হবে ২৫৮ টাকা


সবচেয়ে বেশি দেয়ার নেটওয়ার্কে কেন আসবেন?

বর্তমানে সকল মোবাইল অপারেটরের মাঝে সবচেয়ে বেশি স্পেকট্রাম নিয়ে সবার চেয়ে ভালো গ্রাহকসেবা দিতে বাংলালিংক সবসময় প্রস্তুত। আর বাংলালিংক নেটওয়ার্কে বেশি দেওয়ার উৎসব চলে সবসময়। এই উৎসবে মেতে উঠতে এমএনপি’র মাধ্যমে আপনিও চলে আসুন আমাদের সাথে!

রিচার্জ করুন আর উপভোগ করুন-
*১GB ফ্রি ইন্টারনেট
*দেশের সেরা কলরেট - যেকোনো নাম্বারে ৫৪ পয়সা/মিনিট আর এক সেকেন্ড এর পালস (মেয়াদ ৩ মাস)

১GB @ ৩৩ টাকা প্যাক –
*১GB @ ৩৩ টাকা প্যাক কিনুন যত খুশি ততবার সিম এক্টিভেট করার প্রথম ৯০ দিনের মধ্যে
*কিনতে রিচার্জ করুন ৩৩ টাকা অথবা ডায়াল করুন *১৩২*০৩৩#

অফারের বিস্তারিতঃ
* রিচার্জে কলরেটের মেয়াদ ৩ মাস (৯০ দিন) এবং ১GB ইন্টারনেটের মেয়াদ ১৫ দিন
* ১GB ফ্রি ইন্টারনেটের ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *১২৪*৫#
* ৩৩ টাকায় ১GB ইন্টারনেটের মেয়াদ ৭ দিন
* ৩৩ টাকায় ১GB ইন্টারনেটের ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *১২৪*৩০০#
* SIM চালু করার প্রথম ৯০ দিনের মাঝে আপনি যতবার খুশি ততবার ৩৩ টাকায় ১GB ইন্টারনেটের প্যাকটি নিতে পারবেন
* এই অফারগুলো সীমিত সময়ের জন্য

অ্যাক্টিভেশন বোনাস:
*নতুন সংযোগে শুরুতেই ৳৫ দেয়া থাকবে যার মেয়াদ ১৫ দিন। এটি যেকোনো বাংলালিংক সার্ভিসের জন্য ব্যবহার যাবে। মূল একাউন্টের ব্যালেন্স জানতে ডায়াল *১২৪#
* ৩ দিনের মেয়াদে ৫০MB ইন্টারনেট দেয়া থাকবে। ইন্টারনেট ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *১২৪*৫#
* ৫০টি বাংলালিংক টু বাংলালিংক এসএমএস থাকবে ১০ দিনের মেয়াদে। এসএমএস ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *১২৪*৪#
* ২২ পয়সা/১০ সেকেন্ড যেকোনো নাম্বারে দিন-রাত ২৪ ঘন্টা

বাংলালিংক-এমএনপি-অফার-১জিবি-ফ্রি-ইন্টারনেট-যেকোনো-নাম্বারে-৫৪পয়সা-মিনিট-১জিবি-৩৩টাকা-প্যাক

এমএনপি বিষয়ে সাধারণ প্রশ্ন ও উত্তরঃ

০১. এমএনপি কি?

    এমএনপি হলো মোবাইল নাম্বার পোর্টাবিলিটি। এর মাধ্যমে আপনি আপনার ব্যবহৃত মোবাইল নাম্বারটি না বদলেই অন্য অপারেটরে চলে আসতে পারেন। এর জন্য আপনাকে আপনার বন্ধু-পরিবার অথবা অন্য কোথাও নতুন করে জানাতে হবে না।

০২. এমএনপি’র জন্য কি কি কাগজপত্র আনতে হবে?

    মোবাইল নাম্বার (জাতীয় পরিচয়পত্র দিয়ে নিবন্ধিত)
    জাতীয় পরিচয়পত্রের কপি

০৩. এমএনপি প্রক্রিয়া চালু করার আগে কি করতে হবে?

    যদি অন্য টেলিকম অপারেটরের এমএফএস অ্যাকাউন্ট থাকে তা বন্ধ করতে হবে। তবে আপনার বিকাশ, ডিবিবিএল, ইউসিবিএল এবং অন্য নন-টেলকো এমএফএস অ্যাকাউন্ট থাকলে সে ক্ষেত্রে কোনো অসুবিধা হবে না
    যদি অন্য অপারেটরে বকেয়া বা লোন থাকে তা পরিশোধ করতে হবে

০৪. সর্বোচ্চ কতবার আমি এমএনপি চালু করতে পারবো? এর জন্য নির্ধারিত কোনো সময় বা শর্ত আছে কি?

    আপনি যতবার খুশি ততবার এমএনপি’র মাধ্যমে আপনার নাম্বার পরিবর্তন করতে পারবেন। তবে এমএনপি প্রক্রিয়া চালু করার পর অবশ্যই ৯০ দিন আপনাকে এই সেবা নিতে হবে।

০৫. সফলভাবে নতুন মোবাইল সার্ভিস অপারেটরে চলে আসার পর আমার কি সিম কার্ড পরিবর্তন করতে হবে?

    হ্যাঁ। প্রতিটি মোবাইল অপারেটরের আলাদা আলাদা বৈশিষ্ট আছে বলে আপনার এমএনপি প্রক্রিয়া সফলভাবে সম্পন্ন হলে আপনাকে একটি নতুন বাংলালিংক সিম কার্ড দেয়া হবে

০৬. এমএনপি সার্ভিসটি চালু হতে কতক্ষণ সময়ের প্রয়োজন?

    এই সার্ভিসটি প্রায় সাথে সাথেই চালু হয়ে যায়। তবে সর্বোচ্চ ৭২ ঘন্টা পর্যন্ত সময় লাগতে পারে

০৭. এমএনপি’র মাধ্যমে মোবাইল অপারেটর পরিবর্তনের সময় কোনো অসুবিধা হবে কি?

    এমএনপি’র প্রক্রিয়া খুব তাড়াতাড়ি সম্পন্ন হয়ে যায়। তবে এই প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবার সময় অপারেটর সার্ভিসে ২ থেকে ৪ ঘন্টা একটু সমস্যা হতে পারে

০৮. আমার বিল সাইকেল কি পরিবর্তন হবে?

    পোস্টপেইড সংযোগের জন্য আপনার বিল সাইকেল আপনার নতুন সার্ভিস প্রদানকারী অপারেটরের সাথে পরিবর্তিত হতে পারে। আপনি চাইলে পরে আপনার প্রয়োজনের উপর ভিত্তি করে বিল সাইকেল পরিবর্তন করতে পারেন

০৯. আমার এয়ার টাইম, অব্যবহৃত ডাটা/মিনিট/এসএমএস ইত্যাদি কি এমএনপি’তে অন্য অপারেটরে ট্রান্সফার করা যাবে?

    না। অব্যবহৃত এয়ার টাইম, অব্যবহৃত ডাটা/মিনিট/এসএমএস এমএনপি’তে অন্য অপারেটরে ট্রান্সফার করা সম্ভব নয়

১০. এমএনপি’তে পরিবর্তিত হলে আমি কি আমার আগের নাম্বারের ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস, রোমিং সুবিধাসমূহ উপভোগ করতে পারবো?

    হ্যাঁ। কিন্তু আপনার বর্তমান অপারেটরের ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস এবং এমএনপিকৃত অপারেটরের ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিস আলাদা হতে পারে। সফলভাবে এমএনপি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে আপনাকে আপনার নতুন অপারেটরের ভ্যালু অ্যাডেড সার্ভিসে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে

১১. সফলভাবে এমএনপি চালু করার পর আমার সব কন্টাকটস আর অ্যাড্রেসবুক কী ঠিক থাকবে?

    যদি আপনার মোবাইল ফোনে সব নাম্বার সংরক্ষণ করা থাকে তাহলে সেগুলো ঠিক থাকবে। যদি নাম্বারগুলো সিমকার্ডে সংরক্ষিত থাকে তাহলে সেগুলো থাকবে না। যেহেতু নতুন সেবাদানকারী অপারেটর কর্তৃক আপনাকে নতুন সিম কার্ড সংগ্রহ করতে হবে। এই কারনে আপনার সিম কার্ডে সংরক্ষিত সব নাম্বার মোবাইল ফোনে সংরক্ষণ করতে হবে

১২. এমএনপি প্রক্রিয়ায় আমি কি আমার প্রি-পেইড নাম্বার পোস্ট-পেইড নাম্বারে পরিবর্তন করতে পারবো? অথবা পোস্ট-পেইড থেকে প্রি-পেইডে?

    না। আপনি প্রি-পেইড থেকে প্রি-পেইডে এবং পোস্ট-পেইড থেকে পোস্ট-পেইডে যেতে পারবেন। তবে বাংলালিংক-এর নেটওয়ার্কে আসার পরে আপনি প্রি-পেইড থেকে পোস্ট-পেইডে অথবা পোস্ট-পেইড থেকে প্রি-পেইডে আপনার নাম্বার ট্রান্সফার করতে পারবেন

১৩. ডোনার (সেবাদানকারী) অপারেটর কে?

    ডোনার অপারেটর হচ্ছে সেই সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠান যেখান থেকে আপনি আপনার নাম্বার এমএনপি’র জন্য রিকোয়েস্ট করবেন

১৪. রিসিপিয়েন্ট (সেবাগ্রহণকারী) অপারেটর কে?

    রিসিপিয়েন্ট (সেবাগ্রহণকারী) অপারেটর হলো সেই সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান যার নেটওয়ার্ক এবং অন্যান্য সেবাসমূহে কাস্টমাররা পেতে পারবেন

১৫.ব্যালান্স চেক করতে, ডাটা কিনতে বা কাস্টমের সার্ভিস ব্যবহার করবেন কিভাবে?

   ব্যালেন্স চেক করতে ডায়াল *১২৪#
    ইন্টারনেট প্যাক এর জন্য ডায়াল *৫০০০#
    টকটাইম এবং টক+ইন্টারনেট বান্ডেল প্যাক সম্পর্কে জানতে ডায়াল *১১০০#
    ইমার্জেন্সি ব্যালেন্স সার্ভিস-এর জন্য ডায়াল *১২১*৯৯#
    আমার অফার-এর জন্য ডায়াল *৮৮৮#
    বাংলালিংক প্রিয়জন-এর জন্য ডায়াল *৬০০০#
    কাস্টমার সেলফ কেয়ার-এর জন্য ডায়াল *১২১# 
টেলিটক স্বাগতম এমএনপি অফার! ৪৭ পয়সা/মিনিট যেকোন লোকাল নাম্বারে ,১জিবি ৪৫ টাকা (মেয়াদ ৩০দিন)

টেলিটক স্বাগতম এমএনপি অফার! ৪৭ পয়সা/মিনিট যেকোন লোকাল নাম্বারে ,১জিবি ৪৫ টাকা (মেয়াদ ৩০দিন)

টেলিটক স্বাগতম এমএনপি অফার!
(এমএনপি সম্পর্কে জানুন বিস্তারিত)

যেকোন লোকাল নাম্বারে ৪৭ পয়সা/মিনিট (২৪ ঘন্টাই)
১ সেকেন্ড পালস

ডাটা অফার
১জিবি @ ৪৫ টাকা (মেয়াদ ৩০দিন)
২জিবি @ ৩৩টাকা (মেয়াদ ২ দিন)
৩০জিবি @ ৪৪৯টাকা (মেয়াদ ৩০ দিন)


টেলিটকে মাইগ্রেট করতে যা  করতে হবে
জাতীয় পরিচয়পত্রের (এনআইডি) তথ্যাবলি নিয়ে টেলিটকে কাস্টমার কেয়ার সেন্টারে গিয়ে নতুন একটি সিম (নম্বর আগেরটাই) নিতে হবে। এই সিম পরবর্তী ৭২ ঘণ্টার মধ্যে চালু হবে।

*একজন গ্রাহক ১৫৮টাকা  খরচ করে অপারেটর বদল করতে পারবেন। তবে আগের অপারেটরে ফিরতে হলে তাঁকে ৯০ দিন অপেক্ষা করতে হবে। ৯০ দিন পর ওই গ্রাহক আবারও অপারেটর বদলের সুযোগ পাবেন।

৭২ ঘণ্টার মধ্যে বদলাতে চাইলে ব্যয় হবে ১৫৮ টাকা
২৪ ঘণ্টার মধ্যে বদলাতে চাইলে ব্যয় হবে ২৫৮ টাকা
টেলিটক-স্বাগতম-এমএনপি-অফার-৪৭পয়সা-মিনিট-যেকোন-লোকাল-নাম্বারে-১জিবি-৪৫ টাকা-মেয়াদ-৩০দিন